ইউটিউব

ইউটিউব ভিডিও মার্কেটিং | কেনো ও কিভাবে করবো | ইউটিউব ভিডিও মার্কেটিং করার উপায়। YouTube Video Marketing

YouTube Video Marketing

ইউটিউব ভিডিও মার্কেটিং | কেনো ও কিভাবে করবো | ইউটিউব ভিডিও মার্কেটিং করার উপায়

ইউটিউবের নাম শুনেনি এমন কাউকে কি পাওয়া যাবে ? উত্তর হচ্চে না ৷ বর্তমান সময়ে ইউটিউব সময় কাটানোর অন্যতম মাধ্যম হয়ে উঠেছে ৷ ছেলে-বুড়ো সকলেই মজে গিয়েছে নিত্য নতুন ইউটিউব কন্টেন্টে ৷

ইউটিউব বর্তমানে সার্চ ইঞ্জিন র্যাকিং-এ ২য় তে অবস্থান করছে ৷ গুগলের পরপরই এর অবস্থান ৷ ইউটিউবে কন্টেন্ট ক্রিয়েট করে তাই রাতারাতি ধনী হয়ে গিয়েছে অসংখ্য ব্যক্তি ৷

ইউটিউব ভিডিও মার্কেটিং এক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছে ৷ কন্টেন্ট যতই ভালো হোকনা কেন, সঠিকভাবে ইউটিউব ভিডিও মার্কেটিং করতে না পারলে তাতে ততটা লাভ হবেনা ৷

ইউটিউব ভিডিও মার্কেটিং অনেকগুলো বিষয়ের সমষ্টি ৷ প্রতিটি বিষয়ে যথাযথ মনোযোগ ও কাজ সম্পাদন করার মাধ্যমে সফলভাবে ইউটিউব ভিডিও মার্কেটিং করা যায় ৷ আসুন তবে, ইউটিউব ভিডিও মার্কেটিং ও এ সম্পর্কে জেনে নেই –

YouTube Video Marketing

ভিডিও টাইটেল (video title) হতে হবে আকর্ষণীয় ও মাস্ট ওয়াচ ধরনের :

ইউটিউব মার্কেটিংয়ের মূল কথাই হচ্ছে সঠিকভাবে উপস্থাপনা করতে পারার দক্ষতা ৷ ইউটিউব মার্কেটিংয়ের ক্ষেত্রে ভিডিও টাইটেল সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বলাই চলে ৷ ইউটিউব ভিডিওর টাইটেল দেখেই সর্বপ্রথম একজন ভিউয়ার আপনার ভিডিওতে ক্লিক করবে ৷

আপনার চ্যানেলের ভিডিওর টাইটেল কি ধরণের ? আপনার চ্যানেলের ভিডিও টাইটেল দেখে কি ভিডিও দেখতেই হবে বলে ভিউয়ার উদ্দীপনা পাবে ?

ভিডিওর টাইটেল আকর্ষণীয় হওয়া বলতে বোঝাবে এধরণের টাইটেল, যা দেখে ভিডিওতে কি আছে তা দেখতে ভিউয়াররা প্রবল আকর্ষণ বোধ করবে ৷

ইউটিউবে প্রায়শই আমরা দেখি, সেলিব্রটিদের নিয়ে নানা ধরণের ভিডিও ৷ যেমন ধরুণ, “বারে পরীমনী একি করলো”, “কলকাতার মুভিতে কি দেখালো জয়া” এ ধরণের ভিডিও টাইটেল ৷ টাইটেলগুলো পুরোপুরি বলছেলা ভিডিওতে কি আছে কিন্তু দর্শকদের উস্কে দিচ্ছে ভিডিও দেখার জন্য ৷

এভাবে আমরা দেখতে পারি স্পোর্টস চ্যানেলগুলোর টাইটেল, “মোস্তাফিজের সেরা উইকেট”, “বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের সবচেয়ে বড় ছক্কা”, “সেরা সব ব্যাটভাঙা ডেলিভারি” ধরণের ভিডিও টাইটেল ৷ এ টাইটেলগুলো দর্শকদের আকর্ষণ করে ভিডিওতে ক্লিক করে দেখার জন্য ৷

আপনার ইউটিউব চ্যানেলের ক্যাটাগরি বা কি বিষয়ে ফোকাস করে ভিডিও আপলোড করবেন তার সাথে মিল রেখে ভিডিওর টাইটেলগুলো ও দিতে হবে ৷

ভিডিও ডিস্ক্রিপশন (video description) দিতে হবে সুনিপুণভাবে :

ইউটিউব ভিডিওর ডিটেইল দিতে হবে সুনিপুনভাবে যেন ভিডিওতে কি রয়েছে সেটি যথাযথভাবে ডিটেইলসে উঠে আসে ৷ কেবল তাই নয়, ইউটিউবে ভিডিও সার্চ ফলাফলে সরাসরি প্রভাব ফেলে থাকে ভিডিও ডিটেইল বা ডিস্ক্রিপশন ৷

ইউটিউবে ভিডিও পুরোপুরি আপলোড করার পর ভিডিও ডিস্ক্রিপশন লেখার অপশন আসে ৷ সেখানে ভিডিও সম্পর্কিত তথ্য, অভিনেতা – অভিনেত্রী, লোকেশন বা পণ্যর ব্রান্ড সম্পর্কিত তথ্য উল্লেখ করা যায় ৷ ভিডিও রিলেটেড কি-ওয়ার্ড, ওয়েবসাইট লিঙ্ক ও অন্য ভিডিওর লিঙ্ক এড করে সুন্দর একটি ডিস্ক্রিপশন তুলে ধরা যায় ৷

এক্ষেত্রে মনে রাখতে হবে, ডিস্ক্রিপশনের প্রথম ২-৩ লাইন কেবল দেখা যায় শুরুতে ৷ Show More অপশনে ক্লিক করার পর বাকি লেখাটা আসে ৷ এজন্য প্রথম ২-৩ লাইনে মূল কি-ওয়ার্ড ব্যবহার করতে হবে ৷ রিলেটেড ভিডিওর ডিস্ক্রিপশন কপি করে বসিয়ে হিতে বিপরীত হবে ৷

ভিডিও ট্যাগ (video tag) প্রদান করুন :

ইউটিউব ভিডিও মার্কেটিংয়ের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ স্টেপ বা পদক্ষেপ হচ্ছে ইউটিউব ভিডিও ট্যাগ ৷ ভিডিও ট্যাগের মাধ্যমে আপনার আপলোডকৃত ভিডিও কি ধরণের তা বোঝা যায় ৷ কোন দর্শক যখন আপনার দেওয়া ট্যাগের ধরণের ভিডিওতে ইউটিউবে সার্চ করবে তখন আপনার ভিডিওটি তার সামনে এসে যাবে ৷

ফেসবুক থেকে আয় : কিভাবে ফেসবুক থেকে ইনকাম করা যায় | ফেসবুক টিপস ২০২১

ট্যাগ দেওয়ার সময় সেই ধরণের কি-ওয়ার্ড খুজতে হবে যা দিয়ে ইউটিউবে সার্চ করা হবে বলে মনে করবেন ৷ ভুল ট্যাগ দেওয়া, অতিরিক্ত বড়, অতিরিক্ত ছোট, অপ্রাসঙ্গিক ট্যাগ আপনার ভিডিও মার্কেটিংয়ের জন্য ক্ষতির কারন হবে ৷

উদাহরণ হিসেবে বলা যায় : অপু বিশ্বাসকে নিয়ে কোন ভিডিও আপলোড করলে ট্যাগে অপু বিশ্বাস, apu biswas এভাবে করে লিখে দিতে হবে ৷ ভিডিওতে আর কি কি রয়েছে তার উপর ভিত্তি করে আরও ট্যাগ দিতে হবে ৷

ভিডিও থাম্বনাইল (video thumbnail) :

ভিডিও থাম্বনাইল হচ্ছে সর্বপ্রথম দেখা যাওয়া ভিডিওর একটি স্থিরচিত্র ৷ আপনার ভিডিওর যে কোন একটি পার্ট বা অংশ সবার আগে দেখা যায় ৷ সেটি হচ্ছে ভিডিও থাম্বনাইল ৷ যা অনেকটা ফেসবুক প্রোফাইল পিকচারের মতো ৷

থাম্বনাইল নির্বাচনে সতর্কতা প্রয়োজন ৷ থাম্বনাইল দেখে দর্শকরা আগ্রহী হয় ভিডিওটি দেখার জন্য ৷ ভিডিও টাইটেল ও ট্যাগের মাধ্যমে ভিডিও সার্চ করার পর প্রথমে আসার পর যদি থাম্বনাইল ভালো না হয়, তখন কিন্তু অনেকেই ভিডিও দেখতে আগ্রহী হবেনা ৷

1111 Vpn Premium Apk

আর যেহেতু দর্শকরা যেন ভিডিও দেখে এটাই মূল লক্ষ্য তাই থাম্বনাইল আকর্ষণীয় ও চমকপ্রদ করতে হবে ৷ কাস্টম থাম্বনাইল (custom thumbnail) এড করতে চাইলে আগে চ্যানেল ভেরিফাই করে নিতে হবে ৷

ইউটিউব চ্যানেল ভেরিফাই করার জন্য প্রয়োজন পরবে সচল মোবাইল ফোন নাম্বার ৷ চ্যানেল ভেরিফাই অপশনে যেয়ে মোবাইল নাম্বার প্রদান করতে হবে ৷ অতপর মোবাইলে আসা ভেরিফিকেশন মেসেজ এর নাম্বার বা সংখ্যাগুলো দিতে হবে ভেরিফিকেশন বক্সে ৷ এরপর ক্লিক করতে হবে ভেরিফাই অপশনে ৷ ব্যাস, ইউটিউব চ্যানেল ভেরিফাই হয়ে যাবে !

চ্যানেল ভেরিফাই করার পর ইচ্ছেমত কাস্টম ভিডিও থাম্বনাইল এড করা যাবে ৷ তবে অবশ্যই ভিডিওতে থাকা মূল কন্টেন্ট থাম্বনাইল এ রাখুন ৷ নইলে পরবর্তীতে নতুন ভিডিওতে ভিউ কম পরবে ৷

ভিডিওর প্লেলিস্ট তৈরি করা (playlist for videos)

ফেসবুক ভিডিও মার্কেটিংয়ের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে নিজ চ্যানেলের ভিডিওর প্লেলিস্ট তৈরি করা ৷ প্লেলিস্টে সাধারণত একই ক্যাটাগরি ভিন্ন ভিন্ন আপলোডের ভিডিও থাকে ৷ অর্থাত্, আপনার চ্যানেল বিনোদনের হলে, নায়ক শাকিব খানকে নিয়ে করা ভিডিওগুলোর জন্য “শাকিব খান” নামক প্লেলিস্ট তৈরি করুন ৷ অতপর সেই প্লেলিস্টে শাকিব খানকে নিয়ে তৈরিকৃত ভিডিও এড করে দিন ৷

আবার পরীমনীকে নিয়ে তৈরিকৃত ভিডিওগুলোর জন্য “পরীমনী” প্লেলিস্ট তৈরি করে তাতে পরীমনীর ভিডিওগুলো এড করে বা সেভ করে রাখুন ৷

প্লেলিস্টে থাকা ভিডিওগুলো তুলনামূলকভাবে অনেক বেশি ভিউ পেয়ে থাকে ৷ প্রতিটি সফল ইউটিউবার তার চ্যানেলে প্লেলিস্ট এড করে রাখে ৷ তাই ইউটিউব ভিডিও মার্কেটিংয়ে সফল হতে হলে আপনাকেও প্লেলিস্টে ভিডিও এড/সেভ করতে হবে ৷

 ক্যাটাগরি (category) সিলেক্ট করা :

ইউটিউবে ভিডিও আপলোডের পর ভিডিওর ক্যাটাগরি সিলেক্ট করার অপশন ব্যবহার করুন ৷ আপনার ভিডিও যে ক্যাটাগরির আওতাভুক্ত তা নির্বাচন করে সেভ করে নিন ৷

ভিডিওর জন্য সঠিক ক্যাটাগরি নির্ধারণ ও তা সিলেক্ট করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ৷ ভুল ক্যাটাগরিতে ভিডিও সেভ করলে আপনার ভিডিওর ভিউ কম হবে ৷ যার ফলে ইউটিউব ভিডিও মার্কেটিং সফল হতে পারবেনা ৷ তাই আপনাকে অবশ্যই সতর্ক হতে হবে ৷

সাবস্ক্রাইবারদের (subscriber) সাথে সংযোগ রক্ষা :

আপনার ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিওতে যারা কমেন্ট করে তাদের কমেন্টের রিপ্লাই করুন ৷ তাদের কমেন্টে লাইক দিন ৷ তাদের সাথে নিজেকে যুক্ত করে নিন ৷

ইউটিউব ভিডিও মার্কেটিংয়ে সংযোগ রাখা সফল হওয়ায় হাতিয়ার হিসেবে কাজ করে থাকে ৷ যতটা বেশি আপনি তাদের সাথে সংযোগ স্থাপন করবেন, ততই তারা ভিডিও দেখতে আগ্রহী হবে ৷ যা আপনার চ্যানেলের গ্রোথে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে থাকবে ৷

Instant Index Api Key Setup bangla

ইউটিউব ভিডিও মার্কেটিং করতে যত্নশীল হয়ে প্রতিটি পদক্ষেপ ফেলতে হয় ৷ ইউটিউব ভিডিও মার্কেটিংয়ের পরবর্তী অংশে আপনাদের সাথে আরও কিছু বিষয় শেয়ার করবো ৷ প্রতিটি কৌশল ঠিকভাবে কাজে লাগিয়ে আপনি একজন সফল ইউটিউব ভিডিও মার্কেটার হয়ে যেতে পারবেন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button