Uncategorized
Trending

এই ৫টি কাজ না করলে আপনি দ্রুত চাকরি পাবেন না।

পৃথিবীর অন্যান্য দেশগুলোতে ব্যবসা-বাণিজ্যের কদর থাকলেও আমাদের দেশে শিক্ষার্থীরা পড়াশোনা শেষ করে বের হতে না হতেই চাকরি নামক সোনার হরিণের পেছনে লেগে পড়ে। এর অবশ্য অনেকগুলো কারণ রয়েছে। তার মধ্যে বিশেষ করে সরকারি চাকরির সেফটি সিকিউরিটি এবং সামাজিক গ্রহণযোগ্যতা অন্যতম। 

তবে যারা আসলে চাকরির পিছনে ছুটে বেড়ায় তাদের সবাইকে মানসম্মত একটা চাকরি জীবিকা নির্বাহের জন্য জোগাড় করতে সক্ষম হয়? কখনোই না। অনেকেই হয়তো খুব বেশি সময় এবং দক্ষতার অভাবে নিজের কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারে না।

আজকে এখানে কিছু বিষয় আলোচনা করবো যেগুলো অনুসরণ করলে খুব দ্রুতই চাকরি নামক এই সোনার হরিণ তাকে আপনি আপনার নিজের ঝোলায় পুরতে পারবেন। 

চাকরি

১. সঠিক পরিকল্পনা: আপনি যদি স্নাতক পর্যায়ে প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী হয়ে থাকেন তাহলে এখনি আপনার সবচেয়ে উপযুক্ত সময় সঠিক একটা পরিকল্পনা করার। কারণ আপনার এই পরিকল্পনায় হতে পারে আপনার জীবনে সফলতার সবচেয়ে শক্তিশালী হাতিয়ার। তাই শুরুতেই দীর্ঘমেয়াদী এবং সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা গ্রহণ করুন যে কিভাবে আপনি চাকরির পড়াশোনা ধীরে ধীরে সবার আগে আয়ত্ত করে নিতে সক্ষম হবেন। তাছাড়া যারা প্রথম বর্ষ থেকেই একাডেমিক পড়াশোনার পাশাপাশি চাকরির পড়াশোনায় মনোনিবেশ করে তারা খুব দ্রুত সফলতার মুখ দেখতে পারে।

২. নিয়মিত পড়াশোনা: বাংলাদেশের অন্যতম পর্যায়ের চাকরি গুলো যারা পেয়ে থাকে তাদের বেশিরভাগই খুব একটা মেধাবী নয়। আসলে সরকারি ব্যাংক চাকুরী অথবা বিসিএস মূলত পরিশ্রমীদের জন্য। আপনার পড়াশোনা যদি আপনি নিয়মিত না করেন তাহলে খুব সহজেই অন্যদের পেছনে পড়ে যাবেন। কারন আপনার মত লক্ষ লক্ষ শিক্ষার্থীরা নিয়মিত পড়াশোনা করছে।

৩. কথা বলার দক্ষতা: চাকরির ক্ষেত্রে মানুষের সামনে কথা বলার দক্ষতা অত্যন্ত বেশি ভূমিকা রাখে। আসলে আপনি বাহিরের পরিবেশের সাথে নিজেকে কতটা স্বতঃস্ফূর্তভাবে খাপ খাইয়ে নিতে পারছেন সেটা আপনার কথা বলার ধরনের মধ্য দিয়েই ফুটে উঠবে। তাই শুরু থেকেই চেষ্টা করুন যেকোন বিষয়ে 5 মিনিট যেন কথা বলার যোগ্যতা গড়ে তুলতে পারেন।

কিভাবে বিনামূল্যে এয়ারটেল কলার টিউন সেট করবেন?

৪. যাচাইকরণ: পড়াশোনা করার পাশাপাশি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটা বিষয় হলো নিজেকে যাচাই করা। আপনি শুধু চাকরির জন্য পড়াশোনা করে গেলেন কিন্তু বুঝতে পারলেন না যে আপনি কোথায় দুর্বল এবং কোথায় আপনার গ্যাপ রয়েছে তাহলে কখনোই সামনে এগোতে পারবেন না। তাই পড়াশোনার পাশাপাশি মাঝে মাঝে বিভিন্ন মডেল টেস্ট পরীক্ষা দেওয়ার মাধ্যমে নিজেকে যাচাই করুন।

৫. চাকরি খবর সম্পর্কে আপডেট থাকা: আপনি যদি অন্যদের চেয়ে আগে ভালো একটা চাকরি পেতে চান তাহলে অবশ্যই প্রতিদিনের চাকরির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি গুলো সম্পর্কে আপনাকে আপডেট থাকতে হবে। চাকরির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বাংলাদেশে এমন অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে যাদের আপনি অনুসরণ করতে পারেন। যেমন othoeb.com, bd-career.org, bdjobscareers.com ইত্যাদি। 

আমাদের দেশে চাকরির বাজারে প্রতিযোগিতা কেমন সেটা জানা অত্যন্ত দরকার। সেক্ষেত্রে ক্যাম্পাসের বড় ভাইদের সাথে আলোচনা করলে তাদের অভিজ্ঞতার আলোকে অনেক কিছুই জানতে পারবেন। আশাকরি ওপরের বিষয়গুলো যদি একটু মাথায় রাখেন তাহলে হয়তো গ্রাজুয়েশন শেষ হবার পরপরই পেতে পারেন আপনার কাঙ্খিত ভালো একটি চাকরি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button